Breaking News
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site
Home / National / ঢাকাবাসীর সেবা করতে প্রস্তুত মেয়র পুত্র নাভিদুল হক

ঢাকাবাসীর সেবা করতে প্রস্তুত মেয়র পুত্র নাভিদুল হক

প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের পুত্র নাভিদুল হক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাইলে ঢাকাবাসীর সেবায় যেকোন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রস্তুত তাদের পরিবার। তা মেয়র পদে থেকে বা না থেকে করা যায়।

বিকালে বনানী কবরস্থানে আনিসুল হককে দাফন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে নাভিদ বলেন, বাবার স্বপ্ন বাস্তবায়নে আমাদের পরিবার ঢাকা নগরবাসীর উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে চায়। যাতে বাবার অবাস্তবায়িত স্বপ্ন বাস্তবায়ন করা যায়।

তিনি বলেন, আমার বাবা একজন অত্যন্ত ভালো মানুষ ছিলেন। তার কাছে শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসা ছিল সবার আগে। বাবা কখনো কারো বিরুদ্ধে কিছু বলতেন না। বাবা দেশকে, দেশের মানুষকে ভালোবাসতেন।

মেয়র আনিসুল হকের জানাজ শুরুর আগ মুহূর্তে বাবার হয়ে সবার কাছে ক্ষমা চাইতে গিয়ে ছেলে নাভিদুল হক এসব কথা বলেন। শনিবার রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে ডিএনসিসি মেয়র আনিসুল হকের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। গত বৃহস্পতিবার লন্ডনে চিকিৎসাধীন অবস্থা মারা যান তিনি।

নাভিদুল বলেন, ‘কর্মক্ষেত্রে কিংবা অন্য কোথাও আমার বাবা যদি কোনো দিন কাউকে কষ্ট দিয়ে থাকেন, তাহলে আপনারা আমার বাবাকে ক্ষমা করে দেবেন।’

এসময় তিনি বলেন, ‘দেশ এবং দেশের বাইরে থেকে আমার বাবার জন্য যারা দোয়া করছেন, তাদের সাবার কাছে আমি কৃতজ্ঞ। কষ্ট করে আজ আপনার এখানে বাবাকে শ্রদ্ধা জানাতে এসেছেন, এজন্য আপনাদেরকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

এর আগে মেয়র-পুত্র বলেন, বাবা ছিলেন আমার দিক নির্দেশক, সহযোগী, গুরু, আমার জীবনের পথপ্রদর্শক। বিগত কয়েক বছর আমরা একসাথে আমাদের সেরা সময়গুলো কাটিয়েছি। তিনি ডিএনসিসির মেয়র হবার সময় থেকে আমি তার সাথে সাথে ছিলাম। আমি ছিলাম তার নির্ভরযোগ্য সহযোগী, যার সঙ্গে তিনি তার সব কর্মকাণ্ড, পরিকল্পনা ও স্বপ্নের কথা বলতেন। আমি অবশ্যই সেগুলো পরবর্তীতে আপনাদের জানাবো।

নাভিদুল হক বলেন, বাবা আমাদেরকে যে সেরা মূল্যবোধটি শিখিয়েছেন, বিনম্র ও সততার সঙ্গে নিজের জীবন কাটিয়েছেন, শুধু এটাই তার জীবনের অর্জন হিসেবে যথেষ্ট বলে আমি আপনাদেরকে বলতে পারি। যারা তার সঙ্গে সময় কাটিয়েছেন, তাঁর দরাজ কণ্ঠ, হাসি, জ্ঞান, কবিতা আর স্পর্শ সবসময়ই সেই সৌভাগ্যবান ব্যক্তিদের সঙ্গে রয়ে যাবে।

আনিস-রুবানার একমাত্র ছেলে বলেন, বাবা সমসময় বলতেন তিনি চান যখন তিনি মেয়র থাকবেন না তখনও যেন মানুষ তাকে মনে রাখে। আব্বু, তুমি যখন বেহেশত থেকে নিচে তাকাবে, দেখবে লাখ লাখ মানুষ তোমাকে মনে রেখেছে। আমি তোমাকে প্রতিটি দিন অনেক মিস করব। আমি অনেক সৌভাগ্যবান যে তোমার মতো কিংবদন্তিকে আমার বাবা হিসেবে পেয়েছি।

Check Also

যে দুটি কারনে অপুকে ডিভোর্স দিলেন শাকিব খান !!

একসময় ঢাকার ছবির দুই জনপ্রিয় মুখ ছিলেন অপু-শাকিব। কিন্তু সব কথা গোপন রেখেই একসাথে বিয়ের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *